হেঁচকি বন্ধ করার সহজ উপায়

হেঁচকি রোগ না হলেও, এটি বেশ বিরক্তিকর একটি সমস্যা। চিকিৎসা শাস্ত্রে হেঁচকি ‘সিঙ্ক্রোনাস ডায়াফ্র্যাগমাটিক ফ্লাটার বা সিংগাল্টাস’ নামে পরিচিত। তো চলুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক হেঁচকি ওঠার কারণসমূহ:

(১) অল্প সময়ে একসঙ্গে অনেক খাবার খেলে।

(২) বেশি পরিমাণ অ্যালকোহল পান করলে।

(৩) প্রয়োজনের বেশি শ্বাস নিলে।

(৪) ধূমপানের কারণে।

(৫) হঠাৎ পেটের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রার পরিবর্তন হলে, যেমনঃ গরম পানীয় পান করার পরপরই ঠাণ্ডা পানীয় পান করলে এমনটা হতে পারে।

(৬) মানসিক চাপ বা উত্তেজনার কারণে।

এবার জেনে নেওয়া যাক হেঁচকি বন্ধ করার সহজ ১০টি উপায়:

(১) এক চামচ চিনি বা মাখন খেতে পারেন। দ্রুত এই সমস্যা মিটে যাবে।

(২) মুখের উপরের অংশটিতে ভাল করে মালিশ বা ম্যাসাজ করুন। প্রয়োজনে গলার পেছনের অংশে হালকা মালিশ করুন। এতে করেও হেঁচকি কমবে।

(৩) আপনার যদি এমন হঠাৎ করে হেঁচকি ওঠে, তাহলে লম্বা শ্বাস নিয়ে ভেতরে অনেকক্ষণ রাখুন। এক্ষেত্রে অবশ্যই নাক বন্ধ রাখুন। হেঁচকি সমস্যা মিটে যাবে।

(৪) কাগজের ব্যাগের ভেতরে মাথা ঢুকিয়ে নিশ্বাস নিন। অতি অল্প সময়ের মধ্যেই আপনি উপকার পাবেন।

(৫) লম্বা নিঃশ্বাস নিন। হাঁটুকে বুকের কাছাকাছি এনে জড়িয়ে ধরুন এবং কয়েক মিনিট এ ভাবেই থাকুন। এতে তাড়াতাড়ি উপকার পাবেন।

(৬) লেবু হেঁচকি বন্ধ করতে বেশ কার্যকর। হেঁচকি বন্ধ করার জন্য জিহ্বাতে লেবুর একটি অংশ রাখুন এবং মিষ্টি মনে করে সেটি চুষুন। এতে তাড়াতাড়ি উপকার পাওয়া যায়।

(৭) বেশি বেশি পানি খান। বিশেষ করে ঠান্ডা পানি খেলে অল্প সময়ের মধ্যে উপকার পাওয়া যায়।

(৮) আপনি যখন নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নিবেন তখন নাকে হালকা করে চাপ দিন। এটি হেঁচকির সমস্যা কমাতে অনেকটাই সাহায্য করে।

(৯) হেঁচকি বন্ধে সহায়ক আরেকটি উপায় হল দুই কানে দুই আঙ্গুল ঢুকিয়ে কিছুক্ষণ থাকুন। দেখবেন হেঁচকি নিমেষেই বন্ধ হয়ে গেছে।

(১০) হেঁচকি বন্ধ করতে লেবুর রসের সঙ্গে আদা কুচিও খেতে পারেন। এতে খুব তাড়াতাড়ি উপকার পাবেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*