খাটি মাখন চেনার উপায়

প্রতি দিন সকালে টোস্ট হোক বা বাড়ির ছোট্ট সদস্যের টিফিনের মাখন-পাউরুটি— কমবেশি সব পরিবারেই মাখনের বেশ চল আছে। তবে সমস্যা হচ্ছে ভেজালের এই যুগে ভেজাল মাংস, ভেজাল দুধ, এর মাঝে আপনি যে মাখনটি আপনার পরিবারের জন্য কিনে আনেন সেটা ভেজাল মাখন নাকি খাঁটি সেটা কি আপনার জানা আছে? কারণ বাড়িতে যে মাখন কিনে আনছেন তার মোড়কও নামী মাখন বিক্রয়কারী সংস্থারই থাকে। কিন্তু সেটা খাঁটি বা সেই সংস্থারই? সেটা কীভাবে বুঝবেন?

ভেজাল খাওয়ার ভয়ে মাখন ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন? তা কেন করবেন? বরং কিনে আনা মাখনে ভেজাল রয়েছে কি না তা পরীক্ষা করে নিন নিজেই। ভাবছেন সেটা কীভাবে করবেন? আসুন আজ আমরা খাঁটি মাখন চেনার উপায় জেনে নেই।

মাখনে ভেজাল হিসাবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা হয় বনস্পতি বা ডালডা। আপনার কিনে আনা মাখনে তেমন কোনও ভেজাল আছে কি না তা দেখতে এক চামচ মাখন গলিয়ে তাকে একটা কাচের স্বচ্ছ বয়ামে রাখুন। কিনে আনুন মিউরিয়্যাটিক অ্যাসিড।

এবার এই গলানো মাখনে যোগ করুন সমপরিমাণ মিউরিয়্যাটিক অ্যাসিড। এ বার বোতলের মুখ বন্ধ করে ঝাঁকিয়ে রেখে দিন। কিছু ক্ষণ পর পাত্রটি লক্ষ্য করুন, যদি পাত্রের নীচে কোনও লালচে আস্তরণ দেখতে পান, তবে বুঝতে হবে আপনার কিনে আনা মাখনে ভেজাল আছে।

সতর্কতা:

সাধারণত বাথরুম পরিষ্কার করতে মিউরিয়্যাটিক অ্যাসিড কাজে লাগে। এটি একটি অতি সত্রিয় রাসায়নিক। ঘরোয়া কাজে এই অ্যাসিড ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিশেষ সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। তাই এই অ্যাসিড শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*